খোকনের পু;রুষাঙ্গ কা'টা, রুপা ঘরে নেই

স'ম্পর্কিত খবর টাঙ্গাইল-আরিচা মহাসড়কে বেইলি ব্রিজ ভেঙে যানচলাচল বন্ধ টাঙ্গাইলে কাঠ ব্যবসায়ী হ'ত্যার র'হস্য উদঘাটন টাঙ্গাইলের সখীপুরে ধারালো অ'স্ত্র দিয়ে সৌদি ফেরত খোকন মিয়ার পুরুষাঙ্গ কে'টে পালিয়েছে এক সন্তানের জননী রুপা আক্তার। গুরুতর আ'হত অবস্থায় প্রথমে তাকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতা'লে ও পরে ঢাকা

মেডিকেল কলেজ হাসপাতা'লে নেয়া হয়েছে। শুক্রবার সকালে উপজে'লার দাঁড়িয়াপুর নয়াপাড়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে। জানা যায়, প্রায় সাত বছর আগে দাঁড়িয়াপুর উত্তরপাড়ার ইসমাইলের মে'য়ে রুপার সঙ্গে দাঁড়িয়াপুর নয়াপাড়ার সোনা মিয়ার ছে'লে খোকনের বিয়ে হয়। তাদের একটি ৪ বছর বয়সী ছে'লে শি'শু সন্তান রয়েছে। খোকন

মিয়া প্রায় মাস খানেক আগে দেশে আসেন। দেশে আসার পর থেকেই তাদের মধ্যে টাকা-পয়সার হিসাব নিয়ে ঝগড়া লেগে থাকতো। টাকার হিসাব না দিতে পেরে স্বামীর পুরুষাঙ্গ কে'টে পালিয়ে যেতে পারে স্ত্রী' রুপা।খোকনের চাচা খাজু মিয়া জানান, শুক্রবার সকালে খোকন বাঁ'চাও বাঁ'চাও বলে চি'ৎকার করলে আশেপাশের লোকজন ঘরে প্রবেশ

করে দেখে খোকনের পুরুষাঙ্গ কা'টা এবং রুপা ঘরে নেই। আ'হত খোকনের চাচি ম'র্জিনা বেগম জানান, গুরুতর আ'হত খোকনকে উ'দ্ধার করে দ্রুত টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতা'লে পাঠানো হয়। পরে সেখানে অবস্থার অবনতি দেখে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতা'লে রেফার্ড করা হয়।পালিয়ে যাওয়ার সময় রুপা তার স্বামী খোকনের

পাসপোর্ট, ৮ ভরি স্বর্ণালংকার ও কয়েক লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। এ বিষয়ে সখীপুর থা'নায় মা'মলার প্রস্তুতি চলছে।এ বিষয়ে সখীপুর থা'নার ভা'রপ্রাপ্ত কর্মক'র্তা (ওসি) রেজাউল করিম জানান, থা'নায় অ'ভিযোগ পেয়েছি, মা'মলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। ত'দন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Back to top button

You cannot copy content of this page