র'হস্যময় যে ঝরনার পানি পড়ে ১৫ মিনিট পরপর

বিশ্বের বৃহত্তম ছন্দময় ঝরনা। অবিশ্ববাস্য হলেও সত্যিই যে, এমনই এক ঝরনা আছে যার পানি পড়ে ১৫ মিনিট পরপর।পাথুরে পাহাড়ের পাদদেশে বিশ্বের সবচেয়ে র'হস্যময় প্রাকৃতিক বিস্ময়গুলোর মধ্যে একটি হলো এই ছন্দময় ঝরনা।

এটি প্রতি ১৫ মিনিট পরপর থেমে গিয়ে আবারও প্রবাহিত হয়। পৃথিবীতে মাত্র কয়েকটি ছন্দময় স্প্রিং বা ঝরনা আছে।যার মধ্যে নিউ ইয়র্কের আফটন শহরের ঠিক পূর্বে ওয়াইমিংয়ের সুইফ্ট ক্রিক ক্যানিয়নের অন্তর্বর্তী ঝরনাটি সবচেয়ে বৃহত্তম। র'হস্যময় এই ঝরনার সৌন্দর্য উপভোগ করতে হাজার হাজার পর্যট'ক সেখানে ভিড় করেন।

এ বিষয়ে বিজ্ঞানীদের মত হলো, ছন্দময় স্প্রিংগুলো নির্দিষ্ট সময়ের ব্যবধানে প্রবাহিত ও থামতে সাইফন প্রভাবের উপর নির্ভর করে। এক্ষেত্রে পানি একটি ভূ-গর্ভস্থ গুহায় ক্রমাগত প্রবাহিত হয়।

উটাহ বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন জলবিদ অধ্যাপক কিপ সলোমন বলেছেন, এ ঝরনার পানির গ্যাসের পরিমাণ পরীক্ষা করা হয়েছে।যার ফলফল বলে যে, এই ঝরনার পানি ভূগর্ভস্থ বাতাসের সংস্প'র্শে আসায় এমনটি ঘটে। যা সাইফন তত্ত্বকেই সম'র্থন করে।আফটন ঝরনাটি এক ব্যক্তিরা দ্বারা আবিষ্কৃত হয়েছিল। যিনি ওই এলাকায় কাজ করার সময় লক্ষ্য করে ঝরনার এই অদ্ভুত আচরণ।

তিনি বিশুদ্ধ পানি আনতে সেখানে গিয়ে এরপর দেখলেন অ'পেক্ষাকৃত বড় খাঁড়িটি হঠাৎ করে প্রবাহিত হওয়া বন্ধ হয়ে গেছে। আবার কয়েক মিনিট পরে পানি প্রবাহিত হয়।

তবে সব সময় কিন্তু আপনি এই অবিশ্বা'স্য ঘটনাটি প্রত্যক্ষ করতে পারবেন না। শুধু গ্রীষ্মের শেষ থেকে শরৎ পর্যন্তই ঝরনার এরূপ আচরণ দেখতে পাবেন। কারণ এ সময় ভূগর্ভস্থ পানির স্তর কম থাকে।

Back to top button

You cannot copy content of this page