পাপনকেও ছাড় দেননি মাহমুদউল্লাহ

স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে হার ক'ষ্ট দিয়েছিল বাংলাদেশ দলকে। এরপর কঠোর সমালোচনাও হ'জম করতে হয়েছিল মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বাহিনীকে। খোদ বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনও প্রশ্ন তুলেছিলেন তিন সিনিয়র ক্রিকেটারের ধীরগতির ব্যাটিং নিয়ে।

সরাসরি না বললেও ম্যাচ হারের জন্য সিনিয়রদের ব্যাটিংকেও দায়ী করেছিলেন তিনি। পাপনের সেই মন্তব্য যে ভালো লাগেনি সেটাই প্রকাশ পেল পাপুয়া নিউগিনির বি'রুদ্ধে ম্যাচ জয়ের পর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের সংবাদ সম্মেলনে।

ম্যাচ শেষে সমালোচকদের একহাত নেন মাহমুদউল্লাহ। বাদ যাননি বিসিবি সভাপতিও। বাংলাদেশ অধিনায়ক বলেন, ‘আজকে ভালো খেলছি বলে সবার কাছে মনে হবে ভালো। আবার এক ম্যাচে খা'রাপ করলে খুব বেশি করে সমালোচনা শুরু হয়ে যাবে। অনেক প্রশ্ন এসেছে। আমাদের ব্যাটিংয়ের স্ট্রাইক রেট প্রসঙ্গে। আমাদের তিন সিনিয়র ক্রিকেটারের স্ট্রাইক রেট নিয়ে। আম'রা তো চেষ্টা করেছি। চেষ্টার বাইরে তো আমাদের কাছে কিছু নেই। এরকম না যে আম'রা চেষ্টা করিনি। আপ্রা'ণ চেষ্টা করেছি। কিন্তু ফল আমাদের পক্ষে আনতে পারিনি।’

মাহমুদউল্লাহ আরও বলেন, ‘গত কয়েকদিনে যা হলো… ঠিক আছে, আম'রা মানুষ, আম'রা ভুল করি। এ কারণে একেবারে ছোট করে ফেলা ঠিক নয়। এটা আমাদের দেশ। আম'রা যখন খেলি, পুরো দেশ একসঙ্গে খেলি। এটা মা'থায় থাকে সবসময়। আমাদের চেয়ে ফিলিংস কারও বেশি নয়, আমা'র মনে হয়।

আক্ষেপের সুরে বাংলাদেশ অধিনায়ক বললেন, ‘আম'রাও মানুষ, আমাদের অনুভূতি কাজ করে। আমাদের পরিবার আছে, সবারই পরিবার আছে। আমাদের বাবা-মায়েরা বসে থাকে টিভি সেটের সামনে, সন্তানরা বসে থাকে। তারা মন খা'রাপ করে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম তো এখন হাতের নাগালে, সবারই মোবাইল আছে। সমালোচনা তো হবেই।

আম'রাও আশা করি সমালোচনা, খা'রাপ খেলেছি সমালোচনা তো হবেই। কেন হবে না? সমালোচনা অবশ্যই হবে, খা'রাপ খেলেছি। কিন্তু একেবারে ছোট করে ফেলা ঠিক নয়।সব জায়গা থেকেই সমালোচনা হয়েছে। ক্রিকে'টে ও ক্রিকে'টের বাইরে থেকেও। টি-টোয়েন্টির মতো সংস্করণে কোনো দল ফেবারিট থাকে না। ছোট দলও বড় দলকে হারিয়ে দিতে পারে।’

Back to top button

You cannot copy content of this page