নির্দেশনা না মানলে আরও কঠোর বিধিনিষেধ দেয়া হবে

রোজার ঈদ সামনে রেখে বৃহস্পতিবার থেকে ‘শর্ত সাপেক্ষে’ চালু করা হচ্ছে গণপরিবহন। তবে শর্ত হলো- সিটি সার্ভিস ও জে'লার বাস সার্ভিস অন্য জে'লায় প্রবেশ করতে পারবে না। বাস ছাড়ার আগে সম্পূর্ণ স্বাস্থবিধি মেনে পুরো বাসে জীবাণুনাশক ছিটাতে হবে।

যাত্রী, বাসচালক ও সহকারীকে শতভাগ স্বাস্থ্যবিধি মেনে অর্ধেক সিট খালি রেখে গণপরিবহন চালাতে হবে। তিন সপ্তাহ বন্ধ থাকার পর আজ বৃহস্পতিবার (৬ মে) থেকে গণপরিবহন চালু করেছে পরিবহনের মালিক-শ্রমিকেরা। সরকারের সিদ্ধান্ত মেনে বৃহস্পতিবার ভোর থেকে রাজধানী ঢাকাসহ সব জে'লায় বাস চালু করেছে ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি।

করো'না সংক্রমণরোধ চলমান নির্দেশনা না মানলে ভবিষ্যতে আরও কঠোর বিধিনিষেধ দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। আজ বৃহস্পতিবার (৬ মে) তিনি গণমাধ্যমকে এ কথা জানান। তিনি বলেন, করো'না সংক্রমণরোধে আগামী ১৬ মে পর্যন্ত বিধিনিষেধের মেয়াদ বাড়িয়েছে সরকার। ঈদ উপলক্ষেও একাধিক নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। বিধিনিষেধগুলো হল- ঈদের ছুটিতে নিজ নিজ কর্মস্থালে অবস্থান করা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকানপাট ও শপিংমল খোলা, মাস্কের ব্যবহার শতভাগ নিশ্চিত করা, জনসমাগম হয় এমন সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধ'র্মীয় আচার-অনুষ্ঠান বন্ধ রাখা।

এই নিয়মগুলো না মানলে সংক্রমণ আরও বাড়বে। সেক্ষেত্রে বিধিনিষেধ আরও কঠোর করা হতে পারে। ভা'রতের বর্তমান যে পরিস্থিতি, তাতে আমাদেরও শ'ঙ্কা রয়েছে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার। আমাদের যাতে ওই পরিস্থিতি না হয়, তার জন্য যে যেখানে আছেন সেখানেই ঈদ করুন। প্রতিমন্ত্রী আরও জানান, মানুষ যাতে কর্মস্থল ছাড়তে না পারে সেজন্য বিশেষ নজরদারি থাকবে। বিশেষ করে ঢাকা বা চট্টগ্রামের মত বেশি সংক্রমিত এলাকা থেকে যাতে মানুষ বের হতে না পারে সেজন্য পু'লিশের চেকপোস্ট বসানো হবে।

এর আগে সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠক শেষে এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকেদের মন্ত্রিপরিষদসচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইস'লাম বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে শর্তসাপেক্ষে আগামী ৬ মে থেকে জে'লার ভেতরে গণপরিবহন চলবে। তবে গণপরিবহন জে'লার ভেতরে চলাচল করতে পারবে। আন্তজে'লা চলাচল করবে না। তিনি বলেন, মালিক সমিতি আমাদের কথা দিয়েছে, কোনোভাবে গণপরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি ভঙ্গ করা হবে না। তাহলে বন্ধ করে দেওয়া হবে। এটা আম'রা দেখব। লঞ্চ এবং ট্রেন বন্ধ থাকবে। যেহেতু ওগুলো এক জে'লা থেকে আরেক জে'লায় যায়। সুতরাং বন্ধ থাকবে।

Back to top button

You cannot copy content of this page