এই সেই না’রী যে কিনা প্রতি রাতে আয় করেন ৮ লাখ টাকা

সামান্য স্বাচ্ছন্দ্যপূর্ণ জীবনের আশায় এবং চরম আর্থিক সংকট কাটিয়ে খেয়ে-পরে বেঁচে থাকার প্রত্যাশায় অনেকেই বাধ্য হয়ে দে’হ ব্যবসায় নাম লিখান।তবে, এমনও যৌ কর্মী আছেন যারা এই কাজ করে বিপুল পরিমাণ টাকা উপার্জন করেন।

ভিডিওটি দেখতে নিচের ছবির উপর ক্লিক করুনএমনই একজন যৌ কর্মী নাম অ্যানা। ২১ বছর বয়সী এই নারীর দাবি, তিনি দেহ ব্যবসা করে প্রতি রাতে আট লাখ টাকা আয় করেন।অ্যানার ক্লায়েন্টদের মধ্যে রয়েছেন অস্কার-জয়ী অ'ভিনেতা, রাজনীতিবিদ, খেলোয়াড় কিংবা বড় বড় ব্যবসায়ীরা। ভিডিওটি দেখতে নিচের ছবির উপর ক্লিক করুন

নেটফ্লিক্সের একটি জনপ্রিয় ওয়েব সিরিজের অ'ভিনেতা তার নিত্যদিনের কাস্টমা'র বলেও জানিয়েছেন অ্যানা। নিজেই টিকিট কাটলেন গুরুতর অ'সুস্থ আব্দুল কাদের, ফিরছেন আজক্যা’ন্সা’রে আ’ক্রা’ন্ত ‘বদি’খ্যাত অ'ভিনেতা আব্দুল কাদের। সেটি এখন ফোর স্টেজে রয়েছে। ছড়িয়ে গেছে সারা শরীরে। অবস্থা সংকটাপন্ন। তাই চারদিকে উৎকণ্ঠা এই অ'ভিনেতাকে নিয়ে।

চেন্নাইয়ের ক্রিস্টিয়ান মেডিকেল হাসপাতা'লে চিকিৎসাধীন চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি।আজ ২০ ডিসেম্বর তাকে নিয়ে দেশে ফিরছেন তার পরিবারের সদস্যরা। সঙ্গে আছেন আব্দুল কাদেরের স্ত্রী' খায়রুন্নেসা, পুত্র, পুত্রবধূ ও নাতনি।অ'ভিনেতার পুত্রবধূ জাহিদা ইস'লাম জেমি জানিয়েছেন, আজ সন্ধ্যায় চেন্নাই থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে উড়াল দেবেন তারা।এদিকে শ্বশুরের শারীরিক অবস্থার আপডেট জানিয়ে জেমি বলেন, ‘বাবা এখন কিছুটা ভালো।

আসলে অবস্থাটা এমন যে হাসপাতা'লের কিছু করণীয় নেই তেমন।তাই আম'রা চাচ্ছি উনাকে দেশে নিয়ে যেতে। সেখান থেকেই এখানকার চিকিৎসকদের সঙ্গে পরাম'র্শ করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।তিনি আপাতত মুখে কিছু খেতে পারছেন না। নল দিয়ে স্যালাইন দেওয়া হচ্ছে তাকে।তবে কথা বলছেন স্বাভাবিকভাবেই। নিজেই ফোনে বিজনেস ক্লাসের টিকিট অর্ডার করেছেন ভা'রতের ফরেন রিজিওনাল রেজিস্ট্রেশন অফিসে।’

প্রসঙ্গত, আব্দুল কাদের হু'মায়ূন আহমেদের লেখা ‘কোথাও কেউ নেই’ ধারাবাহিক নাট'কে ‘বদি’ চরিত্রে অ'ভিনয় করে তুমুল জনপ্রিয়তা পান।এছাড়া তিনি হু'মায়ূন আহমেদের ‘নক্ষত্রের রাত’ নাট'কে দুলাভাই চরিত্রেও দারুণ প্রশংসিত হন।বহু একক ও ধারাবাহিক নাট'কের পাশাপাশি তাকে নিয়মিত দেখা গেছে বিটিভির জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ‘ইত্যাদি’-তে।‘রং নাম্বার’ সিনেমাতেও অ'ভিনয়ের মুন্সিয়ানা দেখিয়েছেন আব্দুল কাদের।

জেমির পাঠানো একটি ভিডিওতে দেখা গেল সেই চিত্র। ইংরেজিতে পরিচয় দিয়ে স্ত্রী' ও নিজের জন্য দুটি বিজনেস ক্লাসের টিকিট অর্ডার করলেন আব্দুল কাদের। পরিবারের অন্য সদস্যদের জন্য চাইলেন চারটি ইকোনমি ক্লাসের টিকিট।আব্দুল কাদের জানেন না তার শা’রীরিক অবস্থা সংকটময়। তাকে স্বাভাবিক রাখার সব চেষ্টাই করে যাচ্ছে তার পরিবার। তার মনোবল চাঙ্গা রাখতে তাকে দিয়েই টিকিট অর্ডার করানো হয়েছে। সেই কাজটি বেশ আনন্দ নিয়েই করলেন এই অ'ভিনেতা।

Back to top button

You cannot copy content of this page