‘আমি ধ'' র্ষ' ণ করেছি তোর স্ত্রী'কে’, এ কথা বলার পর…

সর্ম্পকে চাচাতো ভাই সে। তার একাধিকবার ধ'' র্ষ' ণের শিকার হলে প্রা'ণনাশের ভ'য়ে তা চেপে যায় কি'শোরী। পরিবারের পছন্দে ওই কি'শোরীকে অন্যত্র বিয়ে দিলেও ক্ষিপ্ত ধ'র্ষ'ক বরকে জানিয়ে দেন, তিনি তার স্ত্রী'কে ধ'' র্ষ' ণ করেছেন। এ ঘটনার চার দিন পরই নববধূকে তালাক দেন বর।

লোকলজ্জার ভ'য়ে আত্মহ'ত্যার চেষ্টায় ব্যর্থ হলেও ওই কি'শোরীকে বাড়ি ছাড়তে হয়েছে। এ ধরনের ঘটনা ঘটে ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজে'লার মোয়াজ্জেমপুর ইউনিয়নের কাদিরপুর গ্রামে। থা'নায় মা'মলার প্রায় এক মাস পর ওই অ'ভিযু'ক্তকে গ্রে'ফতার করে রেব-১৪-এর একটি দল। গত বৃহস্পতিবার রাতে ধ'র্ষ'ককে নান্দাইল থা'নায় স্থা'নান্তরের পর গতকাল শুক্রবার আ'দালতে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্র ও মা'মলার এজাহার থেকে জানা যায়, ওই গ্রামের অষ্টম শ্রেণিপড়ুয়া কি'শোরীর সঙ্গে প্রে'মের স'ম্পর্ক গড়ে ওঠে পাশের আব্দুল্লাহপুর গ্রামের মো. ফজলুল হক ফজলুর ছে'লে মো. বকুল মিয়ার (৩০)। বিয়ের প্রলো'ভনে কি'শোরীর সঙ্গে শারীরিক স'ম্পর্ক গড়ে তোলেন তিনি। এর মধ্যে ওই কি'শোরীর বিয়ের কথাবার্তা চলে একই গ্রামের মো. খাইরুল ইস'লামের সঙ্গে। আর এতে ক্ষিপ্ত হন প্রে'মিক বকুল মিয়া। বিভিন্ন অ'পবাদ ছড়িয়ে বিয়ে বন্ধ করতে পারেননি। এ অবস্থায় কি'শোরী শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার ১৩ দিন পর স্থানীয় বাজারে কি'শোরীর বরের দেখা পায় বকুল মিয়া। একপর্যায়ে বর খাইরুলকে লোকচক্ষুর আড়ালে ডেকে নিয়ে বকুল মিয়া জানায়, তার (খাইরুল) স্ত্রী'কে সে ধ'' র্ষ' ণ করেছে। এর একাধিক প্রমাণ তার কাছে রয়েছে। এ ঘটনার পর সংসার ভাঙার উপক্রম হলে উভ'য় পক্ষই এক সালিসের আয়োজন করে। পরে স্থানীয় সালিসে বকুল অকপটে জানিয়ে দেন, ওই কি'শোরীর শরীরে প্রকাশ্যে ও অ'প্রকাশ্যের বিভিন্ন স্থানে নানা ধরনের চিহ্নের কথা। পরে সালিসের সর্বসম্মত সিদ্ধান্তক্রমে কয়েকজন নারীর হস্তক্ষেপে কি'শোরীর শরীরের বিভিন্ন স্থানে যাচাইকালে তার প্রমাণ পাওয়া যায়। এ ধরনের সত্যতার কথা স্বীকার করেছেন সালিসে থাকা একাধিকজন। পরে সালিস থেকেই তালাকের সিদ্ধান্ত হয়।

এ ঘটনার পর গত ১৬ অক্টোবর ওই কি'শোরী বাদী হয়ে প্রে'মিক বকুল মিয়াকে অ'ভিযু'ক্ত করে নান্দাইল থা'নায় ধ'' র্ষ' ণের অ'ভিযোগে মা'মলা দায়ের করেন। মা'মলা'টির ত'দন্তকারী কর্মক'র্তা নান্দাইল থা'নার উপপরিদর্শক মনিরুল ইস'লাম। এ অবস্থায় অ'ভিযু'ক্ত বকুলকে তিনি ধরতে না পারলেও রেব-১৪-এর একটি দল গত বুধবার চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড এলাকা থেকে গ্রে'ফতার করতে সক্ষম হয়।

Back to top button

You cannot copy content of this page