প্রথমেই যেসব পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছেন জো বাইডেন

ডোনাল্ড ট্রা'ম্পকে হারিয়ে যু'ক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়ী জো বাইডেন দায়িত্ব নেবার পর সবচেয়ে প্রথম যে পদক্ষেপগুলো নেবেন ইতিমধ্যেই তার পরিকল্পনা ঘোষণা দিয়েছেন।

বিবিসি’র প্রতিবেদনে বলা হয়, বাইডেন মহামা'রী করো'নাভাই মোকাবিলাকে সবচেয়ে বেশি প্রাধান্য দেবেন। করো'নাভাই'রাসের পরীক্ষা অনেক বেশি বাড়িয়ে দেয়া হবে এবং মা'র্কিন নাগরিকদের মাস্ক পরতে বলা হবে।

ডোনাল্ড ট্রা'ম্পের নেয়া নীতিমালাগুলোকে যত দ্রুত সম্ভব সংস্কার করবেন বাইডেন। যদিও ট্রা'ম্প বলেছেন বাইডেনের জয় এখনো অনুমান যেহেতু কিছু গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গরাজ্যে এখনো ব্যালট গণনা চলছে। তবে বাইডেন শি'বির জানুয়ারিতে নেওয়ার বিষয়টি মা'থায় রেখেই তাদের পরিকল্পনা নিয়ে অগ্রসর হচ্ছে।

মা'র্কিন গণমাধ্যমে বলা হচ্ছে ডোনাল্ড ট্রা'ম্পের নেয়া বেশকিছু বিতর্কিত নির্বাহী আদেশ, যার জন্য কংগ্রেসের অনুমোদন দরকার হয় না, সেগুলোকে আগের অবস্থানে নেবার পরিকল্পনা করছেন জো বাইডেন।

ডোনাল্ড ট্রা'ম্পের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী প্যারিস জলবায়ু চুক্তি থেকে বের হয়ে গিয়েছিল যু'ক্তরাষ্ট্র। তাতে আবারো যোগ দেবে দেশটি। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে সরে গিয়েছিল যু'ক্তরাষ্ট্র। সেই সিদ্ধান্ত বদলে দেবেন জো বাইডেন।

যে সাতটি দেশের নাগরিকদের উপর যু'ক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা রয়েছে তা প্রত্যাহার করা হবে।বারাক ওবামা'র সময়কার কিছু নীতিকে পুনর্বহাল করবেন। বিশেষ করে শি'শু বয়সে যারা কোন বৈধ কাগজ ছাড়া অ'ভিবাসী হিসেবে যু'ক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করেছে তাদের নাগরিকত্ব দেয়া।

জো বাইডেন তার বিজয়ী ভাষণেও আসছে দিনগুলোতে তার নীতিমালা স'ম্পর্কে কিছুটা ধারনা দিয়েছেন। তার একটি হচ্ছে, ‘আমাদের প্রতিপক্ষকে শত্রু হিসেবে বিবেচনা করা বন্ধ করতে হবে।’

ভাষণে জো বাইডেন ঐক্য, সহনশীলতা, সহযোগিতার সমাজ গড়ে তোলার আহবান জানান।

ভাইস প্রেসিডেন্ট ‘ইলেক্ট’ কমালা হ্যারিসের সাথে মিলে এরই মধ্যে একটি ট্রানজিশন ওয়েবসাইট তৈরি করেছেন জো বাইডেন।

Back to top button

You cannot copy content of this page