রোগ-ব্যাধিতে যে তাসবিহ ও দোয়া পড়বেন

রোগ-ব্যাধি বান্দার জন্য যেমন পরীক্ষা তেমনি তা আল্লাহর আজাব-গজবেরও ইঙ্গিত বহন করে। জানা-অজানা অনেক কঠিন রোগ-ব্যাধিতে আ'ক্রান্ত হয় মানুষ। এসব রোগ-ব্যাধি থেকে মুক্তির অন্যতম উপায় হচ্ছে মহান আল্লাহর তাসবিহ ও তার কাছে ধরনা দেয়া।

কুষ্ঠ, অন্ধত্ব, পক্ষাঘাতগ্রস্ত রোগ-ব্যাধিসহ জটিল ও কঠিন অচেনা-অজানা সব রোগ-ব্যাধির চিকিৎসায় মহান আল্লাহর তাসবিহ এবং দোয়া পড়ার মধ্যে রয়েছে শান্তি এবং মুক্তি। তাহলো-
– سُبْحَانَ اللهِ الْعَظِيْمِ وَبِحَمْدِهِ
উচ্চারণ- ‘সুবহানাল্লাহিল আজিম ওয়া বিহাম'দিহি।’

অ'তপর এ দোয়া পড়া-
– اللَّهُمَّ إِنِّى أَسْأَلُكَ مِمَّا عِنْدَكَ، وَأَفِضْ عَلَىَّ مِنْ فَضْلِكَ، وَانْشُرْ عَلَىَّ رَحْمَتَكَ، وَأَنْزِلْ عَلَىَّ مِنْ بَرَكَاتِكَ
উচ্চারণ : আল্লাহু'ম্মা ইন্নি আসআলুকা মিম্মা ইনদাকা ওয়া আফিজ আলাইয়্যা মিন ফাদলিকা ওয়ানছুর আলাইয়্যা রাহমাতাকা ওয়ানজিল আলাইয়্যা বারকাতাকা।’ (তাবারানি ফি মুজামুল কাবির)
অর্থ : হে আল্লাহ! তোম'র কাছে যা আছে আমি তাই তোমা'র কাছে চাই। তোমা'র অনুগ্রহের একটু ধারা আমা'র দিকে প্রবাহিত করো এবং তোমা'র রহমতের একটু বারি আমা'র ওপর বর্ষণ করো আর তোমা'র বরকতসমূহ থেকে একটুখানি আমা'র প্রতি নাজিল করো।

আমল : সকাল-সন্ধ্যায় তথা ফজর ও মাগরিবের ফরজ নামাজের পর তাসবিহ তিনবার এবং দোয়াটি একবার নিয়মিত আমল করা।

আল্লাহ তাআলা মু'সলিম উম্মাহকে উল্লেখিত তাসবিহ ও দোয়া পড়ার মাধ্যমে সব কঠিন রোগ-ব্যাধি থেকে মুক্ত থাকতে তাঁরই কাছে ধরনা দেয়ার তাওফিক দান করুন। আমিন।

Back to top button

You cannot copy content of this page