যে ৫ দিন ‘তাকবিরে তাশরিক’ পড়া জরুরি!

‘তাকবিরে তাশরিক’ হলো মহান আল্লাহ তাআলার একত্ববাদের স্বীকৃতি ও প্রশংসা ঘোষণা। প্রতি হিজ'রি বছরের জিলহ'জ মাসের ৯ তারিখ ফজর নামাজ থেকে ১৩ তারিখ আসর নামাজ পর্যন্ত ২৩ ওয়াক্ত নামাজের পর তাকবিরে তাশরিক ১ বার পড়া ওয়াজিব।

প্রত্যেক প্রাপ্তবয়স্ক নারী-পুরুষ, মুকিম-মু'সাফির, গ্রামবাসী-শহরবাসী, জামাআতে বা একাকি প্রত্যেক ফরজ নামাজের পর প্রত্যেকের ওপর একবার করে তাকবিরে তাশরিক পাঠ করা ওয়াজিব। তাকবিরে তাশরিক হলো- اللَّهُ أَكْبَرُ اللَّهُ أَكْبَرُ لَا إلَهَ إلَّا اللَّهُ وَاَللَّهُ أَكْبَرُ اللَّهُ أَكْبَرُ وَلِلَّهِ الْحَمْدُউচ্চারণ : ‘আল্লাহু আকবর, আল্লাহু আকবর, লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহু ওয়াল্লাহু আকবর, আল্লাহু আকবর, ওয়ালিল্লাহিল হাম'দ্।’অর্থ : ‘আল্লাহ মহান, আল্লাহ মহান; আল্লাহ মহান, আল্লাহ ব্যতিত কোনো উপাস্য নেই; সমস্ত প্রশংসা আল্লাহর জন্য, আল্লাহ মহান।’ সে হিসেবে এ বছর আগামী ৩১ জুলাই শুক্রবার ২০২০ (৯ জিলহ'জ) ফজর থেকে ০৪ আগস্ট মঙ্গলবার ২০২০ (১৩ জিলহ'জ) আসর নামাজ পর্যন্ত ২৩ ওয়াক্ত ফরজ নামাজের পর ‘তাকবিরে তাশরিক’ পড়তে হবে।

এ তাকবির প্রত্যেক ওয়াক্তে ১ বার পড়া ওয়াজিব। আর ৩ বার পড়া মোস্তাহাব। আল্লাহ তাআলা মু'সলিম উম্মাহকে এ ২৩ ওয়াক্ত ফরজ নামাজের পর তাকবিরে তাশরিক পাঠ করে আল্লাহর ভালোবাসার ভাগিদার হওয়ার তাওফিক দান করুন। আল্লাহু'ম্মা আমিন।

লেখক : হাফিজ মাছুম আহম'দ দুধরচকী'
সাবেক ই'মাম ও খতিব কদমতলী মাজার জামে ম'সজিদ সিলেট।

Back to top button

You cannot copy content of this page