ধারনার চেয়েও বেশি ভা'রতীয় ভূখণ্ড দখল করেছে চীন

চীনা সে'নাবাহিনী লাদাখের গালওয়ান উপত্যকার সীমানা পেরিয়ে ভা'রতীয় ভূখণ্ডের ৪২৩ মিটার পর্যন্ত এলাকায় প্রবেশ করতে পেরেছে বলে জানিয়েছে ভা'রতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি ।

১৯৬০ সালে চীন ভা'রতীয় অংশের যে পরিমাণ ভূমি দাবি করেছিল, এখন তার চেয়েও বেশি ভূমি দখলে নিতে সক্ষম হয়েছে তারা। এনডটিভি জানায়, গালওয়ান উপত্যকায় ভা'রতীয় অংশে রয়েছে চীনা বাহিনীর ১৬ টি তাঁবু, একটি বড় আশ্রয়কেন্দ্রে ও অন্তত ১৪ টি গাড়ি। ২

সোমবার (২৯ জুন) এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সং'ঘর্ষের ১০ দিন পর গত ২৫ জুন তোলা উপগ্রহ চিত্রে দেখা গেছে, ভা'রতের অভ্যন্তরে ৪২৩ মিটার ঢুকে গেছে চীন। ১৯৬০ সালে ‘রিপোর্ট অব দ্য অফিসিয়্যালস অব দ্য গভর্নমেন্টস অব ইন্ডিয়া এন্ড দ্য পিপল’স রিপাবলিক অব চায়না অন দ্য বাউন্ডারি কোশ্চেন’ এ বেইজিং এর পক্ষ থেকে যে পরিমাণ ভূখণ্ড দাবি করার কথা জানা গেছে, তার চেয়ে এর পরিমাণ বেশি।

রবিবার ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে ভা'রতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি চীনের নাম উল্লেখ না করে বলেন, “লাদাখে ভা'রতের দিকে যারা খা'রাপ নজর দিয়েছে, তাদের আম'রা উপযু'ক্ত জবাব দিয়েছি। ভা'রত বন্ধুত্বের ম'র্যাদা রাখতে জানে। কিন্তু শত্রুকেও উপযু'ক্ত জবাব দিতে পারে।”

এক মাসেরও বেশি সময় ধরে লাদাখ সীমান্তে ভা'রত ও চীনা সে'নাদের মধ্যে উত্তে'জনার পর গত ১৫ জুন (সোমবার) উভ'য় পক্ষ সংঘাতে জড়ায়। এতে ভা'রতের ২০ সে'না নি'হত ও অ'পর ৭৬ জন আ'হত হয়। ভা'রত দাবি করে আসছে, চীনের অন্তত ৪৫ জন হতাহত হয়েছে। তবে চীন সরকারিভাবে কোনও হতাহতের খবর জানায়নি। দুই দেশই পরস্পরের বি'রুদ্ধে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখা অ'তিক্রম করার অ'ভিযোগ এনেছে।

Back to top button

You cannot copy content of this page